পিতল কত টাকা কেজি । পিতলের দাম কত

পিতল কত টাকা কেজি । পিতলের দাম কত ২০২৪

Last Updated:4 months ago

আশা করি সকলে ভালো আছেন। আজকে আমরা পিতল সম্পর্কে জানবো। এক সময় বাংলাদেশে অনেক গ্রামে পিতল দিয়ে অনেক রকমের জিনিস পত্র বানানো হতো। প্রাচীন কাল থেকে মানুষ এই পিতলের তৈরি জিনিস পত্র ব্যবহার করে আসছে। পিতল দিয়ে অনেক ধরণের জিনিস পত্র তৈরি করা হয় যেমন থালা,হাড়ি,কলস ইত্যাদি। অনেকেই পিতল সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চায়। যেহেতু প্রাচীন কাল থেকে মানুষ পিতলের ব্যবহার করে আসছে তাই এর দাম সম্পর্কে জানার আগ্রহ থাকাটা স্বাভাবিক। তাই অনেকেই ইন্টারনেটে খুজে থাকে পিতল কত টাকা কেজি। আজকে আমরা এই পোস্ট এর মাধ্যমে জানিয়ে দিবো পিতলের দাম কত

পিতল কত টাকা কেজি বা পিতলের দাম কত

এখনো অনেক মানুষ পিতলে তৈরি জিনিস পত্র ব্যবহার করে। বর্তমানে পিতল প্রতি কেজির দাম ৫০০ থেকে ১২০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে।


পুরাতন পিতল কত টাকা কেজি

বাংলাদেশে বর্তমানে পিতলের চাহিদা বেশ অনেক। কারণ মানুষ পিতলের তৈরি জিনিস পত্র ব্যবহার করতে পছন্দ করে। কিন্ত অনেকেই আছে যারা পুরাতন পিতল কিনতে চায় কিংবা পুরাতন পিতলের দাম সম্পর্কে জানতে চায়। আজেক আমরা এই পোস্ট এ জানিয়ে দিবো পুরাতন পিতল কত টাকা কেজি।

বর্তমান বাজারে নতুন পিতলের দাম ৫০০ থেকে ১২০০ টাকা পর্যন্ত। এবং পুরাতন পিতলের মূল্য ৪০০ থেকে ১০০০ টাকা পর্যন্ত তবে এর দাম একেক জায়গায় একেক রকম হতে পারে।


আসল পিতল চেনার উপায়

বর্তমানে অনেকেই শখের বশে পিতলের তৈরি জিনিস পত্র কিনে থাকে। কিন্ত পিতল সম্পর্কে না জানার কারণে আসল পিতল কিনতে পারি না। তাই অনেকেই আসল পিতল চেনার উপায় জানতে চায়। আজকে আমরা জানিয়ে দিবো আসল পিতল চেনার উপায়।

সাধারণত পিতলে ৬৭ শতাংশ তামা এবং ৩৩ শতাংশ দস্তা থাকে। এছাড়াও পিতলে প্রায় ২ শতাংশ সীসা যুক্ত হতে পারে। সীসা যুক্ত হলে পিতলের যান্ত্রিক উপযোগিতা বৃদ্ধি পায়।

আসল পিতল সাধারণত আসল পিতল উজ্জল সোনালি হয়ে থাকে। এবং তামা এবং পিতল পাশাপাশি রাখলে পার্থক্য বোঝা যায়।

 

পিতলের হাড়ি দাম

বর্তমানে বেশির ভাগ মানুষ শখ করে পিতলের তৈরি জিনিস পত্র কিনে থাকে। তাই বাংলাদেশে পিতলের তৈরি জিনিস পত্রের চাহিদা অনেক। পিতল দিয়ে অনেক ধরণের রান্নার হাড়ি তৈরি করা হয়। অনেকেই শখ করে পিতলের তৈরি হাড়িতে রান্না করার জন্য ইচ্ছা করে থাকে তাই পিতলের তৈরি হাড়ি কিনতে চায় কিংবা পিতলের তৈরি হাড়ির দাম সম্পর্কে জানতে চায়। নিচে পিতলের হাড়ি দাম কত দেওয়া হলো।

বর্তমান বাজারে পিতলের তৈরি একটা বড় হাড়ির দাম প্রায় ৩৭০০ থেকে ৩৯০০ টাকার মধ্যে। এছাড়া মাজারি একটা পিতলের হাড়ির দাম ২২০০ থেকে ২৪০০ টাকা। এবং পিতলের তৈরি ছোট একটা হাড়ির দাম ১৫০০ থেকে ১৮০০ টাকা


পিতলের কলসির দাম

সাধারণত পিতলের তৈরি জিনিস পত্র অনেক বেশি টেকসই হয়। বিশেষ করে  পিতলের তৈরি কলস বেশি টেকসই হয়ে থাকে। তাই অনেকেই পিতলের তৈরি কলস ব্যবহার করতে চায়। কিন্ত এর দাম সম্পর্কে অনেকেই জানে না। আজকে আমরা জানিয়ে দিবো পিতলের কলসির দাম কত।

সাধারণত পিতলের কলস এর দাম লিটার হিসেবে ধরা হয়। তাই একেক লিটারের কলসির দাম একেক রকম হয়ে থাকে। যেমন ছোট একটি ১০ লিটারের কলসির দাম ২০০০ টাকার মতো।এবং ১৫ লিটারের একটি বড় পিতলের কলসির দাম ২৫০০ টাকার মতো। 


পিতলের থালার দাম

অনেকেই পিতলের থালা ব্যবহার করে থাকে। তাই পিতলের থালার দাম জানার জন্য আগ্রহি হয়ে থাকে। আজকে আমরা জানিয়ে দিবো পিতলের থালার দাম কত।

বর্তমানে পিতলের প্রতি পিস বড় একটি প্লেটের দাম ১৭,৫০ টাকার মতো। এবং পিতলের তৈরি ছোট এক সেট প্লেটের দাম ২২,০০ টাকার মতো।


পিতলের উপকারিতা

পিতলের মধ্যে অনেক উপকার রয়েছে। তাই অনেক মানুষ পিতলের তৈরি জিনিস পত্র ব্যবহার করে থাকে এছাড়া ডাক্তারও পিতলের তৈরি জিনিস পত্র ব্যবহার করার জন্য পরামর্শ দিয়ে থাকে। পিতলে পিতলে ৬০-৮০ শতাংশ তামা এবং ৩৩ শতাংশ দস্তা থাকে। তাই পিতল সহজে ক্ষয় হয় না। পিতল ভেক্টেরিয়া মারে তাই পিতলকে ভেক্টেরিয়া প্রতিরোধকও বলা হয়। তাই থালা বাসন তৈরিতে এটির ব্যবহার প্রচুর। পিতল অনেক টেকসই।পিতলে ২ টি ধাতুর গুন রয়েছে। বিশেষজ্ঞরা মনে করে পিতলের হাড়িতে রান্না করলে খাবারের পুষ্টিমূল্য বজায় থাকে।


আশা করি আপনারা আজকে আমাদের এই পোস্ট থেকে পিতলের দাম, পিতলের জিনিস পত্রের দাম, পিতলের উপকারিতা এবং পিতল সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পেরেছেন। আমাদের পুরো পোস্টটি ধৈয ধরে পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

একই ধরনের পোস্ট

×