নাজিরশাইল, ২৮, ২৯, লাল, পাইজাম, আতপ চালের দাম কত

নাজিরশাইল, ২৮, ২৯, লাল, পাইজাম, আতপ চালের দাম কত ২০২৪

Last Updated:1 week ago

আসসালামু আলাইকুম আশা করি সকলে ভালো আছেন। আজকে আমরা বর্তমানের বিভিন্ন প্রকার যেমনঃ নাজিরশাইল, ২৮, ২৯, লাল, পাইজাম, আতপ ও মোটা চালের দাম সম্পর্কে আলোচনা করবো। ভাত আমাদের নিয়মিত খাবার। আমাদের প্রতিদিন অন্যান্য খাবারের পাশাপাশি ভাত প্রয়োজন হয়। আর এই ভাত তৈরি হয় চাল থেকে তাই বলা যায় চাল আমাদের প্রতিদিনের নিয়মিত খাবার। তবে আগের তুলনায় বাংলাদেশে চালের দাম কিছুটা বেড়েছে। বাজারে নতুন চাল আসা সত্ত্বেও চালের দাম বেড়েছে। গত মাসেও চালের দাম কিছুটা কম ছিলো কিন্ত এই মাসে আবার অনেকটা বাড়ানো হয়েছে চালের দাম। অনেকেই জানতে চায় বর্তমানে চালের দাম কত। চলুন জেনে নেই বিভিন্ন প্রকার চালের দাম কত

বর্তমানে বিভিন্ন প্রকার চালের দাম কত

বর্তমান বাজারে ১ বস্তা ২৯ চালের দাম ২৮০০ থেকে ২৯০০ টাকা যা গত মাসে ছিলো ২৭০০ থেকে ২৭৫০ টাকা। গত মাসের তুলনায় এই মাসে চালের প্রায় ১৫০ থেকে ২৫০ টাকা বাড়ানো হয়েছে। বাজারে এখন উন্নতমানের বাসমতী চাল পাওয়া যায়, কিন্তু দাম অত্তাধিক বেশি।যার প্রতি কেজির মূল্য হয়েছে  ১৫০ টাক থেকে ২০০ টাকা পযন্ত। বিগত ২০১৮, ১৯, ২০ সালে চাল এর দাম ছিলো হাতের নাগালে।৫০ কেজি উন্নতমানের চাল ১৬০০ থেকে ১৯০০ বা ২০০০ টাকার মধ্যেই পাওয়া যেতো। বর্তমান বাজারে যা ২৪০০ টাকার মধ্যেও পাওয়া যাচ্ছে না। চাল এর বাজারে সর্বনিম্ন ২৬০০ টাকা বস্তা চাল রয়েছে। তবে এই চালের গুনগত মান অনেকটাই খারাপ। বাজারে উন্নতমানের প্রতি বস্তা চালের দাম ২৮০০ থেকে ২৯০০ টাকা। তবে এর দাম একেক জায়গায় একেক রকম হয়ে থাকে।


নাজিরশাইল চালের দাম কত

বর্তমান বাজারে নাজিরশাইল চালের অনেক বেশি চাহিদা রয়েছে। নাজিরশাইল চাল দিয়েও অনেক ভালো ভাত রান্না হয়। এই চালের গুনগত মান অনেক ভালো হওয়ায় এই চালের চাহিদা বাংলাদেশে দিন দিন বেড়েই চলেছে। আগে এই চালের চাহিদা অনেকটা কম ছিলো কিন্ত বর্তমান বাংলাদেশে আগের তুলনায় এই নাজিরশাইল চালের চাহিদা এবং জনপ্রিয়তা দিন দিন বেড়েই চলেছে। অনেকেই জানতে চায় নাজিরশাইল চালের দাম কত। আজকে আমরা এই পোস্ট এর মাধ্যমে জানিয়ে দিবো নাজিরশাইল চালের দাম।

বর্তমানে অনেক জনপ্রিয় চাল গুলোর মধ্যে নাজিরশাইল চাল অন্যতম। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি নাজিরশাইল চালের দাম ৭৫ থেকে ৮৫ টাকা। আগের তুলনায় নাজিরশাইল চালের দাম কিছুটা কম। আগে এই চালের দাম ছিলো ৭২ থেকে ৮২ টাকা। বর্তমানে ৫ কেজি নাজিরশাইল চালের দাম ৩৭৫ থেকে ৪২৫ টাকা। এছাড়া ১০ কেজি নাজিরশাইল চালের দাম ৭৫০ থেকে ৮৫০ টাকা। নাজিরশাইল চালের ২৫ কেজির বস্তার দাম ১৮৭৫ থেকে ২১২৫ টাকা। এবং নাজিরশাইল চাল ৫০ কেজির দাম ৩৭৫০ থেকে ৪২৫০ টাকা। বর্তমানে নাজিরশাইল চালের চাহিদার তুলনায় দাম কিছুটা কম। তবে এর দাম স্থানভেদে  কম বেশি হতে পারে।


২৮ চালের দাম কত

বর্তমানে বাংলাদেশে ২৮ চালের অনেক চাহিদা রয়েছে। বর্তমান বাজারে মোটা চাল ব্রি-২৮ প্রতি বস্তা ২৬০০ থেকে ২৬৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

ব্রি-২৮ চালের ৫০ কেজির বস্তা ১০০ টাকা বেড়ে ২৩০০ থেকে ২৪০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

ব্রি-২৮ চাল ৫০ কেজির বস্তা ২৫৫০-২৬০০-এর স্থলে ২৬৫০-২৭০০ টাকা বিক্রি হচ্ছে।

বর্তমান বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয় এবং চাহিদা সম্পূর্ণ চালের মধ্যে ২৮ চাল অন্যতম। ২৮ চাল দিয়ে সাধারণ শুধু ভাত রান্না করা হয়। বিশেষ করে গ্রাম অঞ্চলের মানুষ ২৮ চাল বেশি খেয়ে থাকে। গ্রামের প্রায় অধিকাংশ মানুষ ২৮ চাল পছন্দ করে থাকে এবং এই চাল ব্যবহার করে থাকে। তবে বর্তমানে গ্রামের পাশাপাশি শহরের মানুষও ২৮ চাল ব্যবহার করে থাকে। এই চাল দিয়ে অনেক সুন্দর ভাত তৈরি হওয়ায় এবং এই ২৮ চালের গুনগত মানের কারণে এর চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলেছে। তবে এই দাম একেক জায়গায় একেক রকম হতে পারে।


২৯ চালের দাম কত

বর্তমানে বাংলাদেশে অন্যান্য চালের পাশাপাশি ২৯ চালের অনেক চাহিদা রয়েছে। অনেকেই জানতে চায় ২৯ চালের দাম কত। চলুন জেনে নেই বর্তমানে ২৯ চালের দাম। বর্তমান বাজারে ব্রি-২৯ চালের দাম কেজিতে তিন থেকে চার টাকা বেড়েছে। বাজারে এখন প্রতি কেজি ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যেখানে আগে বিক্রি হতো ৫০ টাকায়। ব্রি-২৯ চালের ৫০ কেজির বস্তার দাম ৩ হাজার টাকা এবং ২৫ কেজির বস্তার দাম ১৬০০ টাকা। ভবিষ্যতে ব্রি-২৯ চালের দাম আরও বাড়বে বলে পূর্বাভাস দেওয়া হচ্ছে। বর্তমানে বাজারে ব্রি-২৯ চালের নতুন মজুদ পাওয়া যাচ্ছে।

২৯ জাতীয় চাল বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৬২ টাকা।

বিআর ২৯ চাল ৫০ কেজির ২৪০০ থেকে ২৪৫০ টাকা।

এই ২৯ চালে রয়েছে নিউরোট্রান্সমিটার সদৃশ কেমিক্যাল যা মস্তিষ্কের অ্যালঝেইমার রোগ প্রতিরোধ করে। এতে রয়েছে ভিটামিন বি ও ই যা আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি ও বিপাকীয় শক্তি বৃদ্ধিতে দারুণ উপকারী। তাছাড়াও এতে রয়েছে ক্যালসিয়াম, ফসফরাস, সেলেনিয়াম ও ম্যাঙ্গানিজ নামক মিনারেলস রয়েছে।


লাল চালের দাম কত

লাল চাল এই চাল ব্রাউন চাল নামেও অনেক জায়গায় পরিচিত। অনেকেই জানতে চায় লাল চালের দাম। চলুন জেনে নেই লাল চলের দাম কত। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি লাল চালের দাম ৮০ থেকে ১০০ টাকা। এছাড়া ৫ কেজি চালের দাম ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা। লাল চাল ১০ কেজির দাম ৮০০ থেকে ১০০০ টাকা। বর্তমানে লাল চাল ২৫ কেজির দাম ২০০০ থেকে ২৫০০ টাকা এবং ৫০ কেজি লাল চালের দাম ৪০০০ থেকে ৫০০০ টাকা। এই লাল চাল তবে এর দাম একেক জায়গায় একেক রকম হতে পারে।


পাইজাম চালের দাম কত

পাইজাম চাল আমরা প্রায় সকলেই কম বেশি এই চালের সাথে পরিচিত। বিশেষ করে গ্রাম অঞ্চলের মানুষের কাছে এই চাল বেশি পরিচিত। অনেকেই জানতে চায় পাইজাম চালের দাম কত। চলুন জেনে নেই পাইজাম চালের দাম। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি পাইজাম চালের দাম ৪০ থেকে ৫০ টাকা। এছাড়া ৫ কেজি পাইজাম চালের দাম ২০০ থেকে ২৫০ টাকা। ১০ কেজি পাইজাম চালের দাম ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা। পাইজাম চাল ২৫ কেজির দাম ১০০ থেকে ১২৫০ টাকা। পাইজাম চাল ৫০ কেজির দাম ২০০০ থেকে ২৫০০ টাকা। এবং প্রতি বস্তা পাইজাম চাল পাওয়া যায় ২১০০ থেকে ২১৫০ টাকায়। তবে এর দাম স্থানভেদে কম বেশি হয়ে থাকে।

  

আতপ চালের দাম কত

বর্তমানে বাংলাদেশে অনেকেই আতপ চাল খেয়ে থাকে। তবে অনেকেই জানতে চায় আতপ চালের দাম সম্পর্কে। চলুন জেনে নেই আতপ চালের দাম। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি আতপ চালের দাম ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা। এছাড়া ৫ কেজি আতপ চালের দাম ৭০০ থেকে ৭৫০ টাকা। ১০ কেজি আতপ চালের দাম ১৪০০ থেকে ১৫০০ টাকা। আতপ চাল ২৫ কেজির দাম ৩৫০০ থেকে ৩৭৫০ টাকা। এবং ৫০ কেজি আতপ চালের দাম ৭০০০ থেকে ৭৫০০ টাকা। আগের তুলনায় আতপ চালের দাম কিছুটা বেড়েছে। তবে এর দাম একেক জায়গায় একেক রকম হতে পারে।

আতপ চালের ভাত হচ্ছে ভাতের একটা প্রকরণ যা কিছুটা চটচটে এবং সুস্বাদু। এই ভাত ভিয়েতনাম, ফিলিপাইন, চীন, কোরিয়া, জাপানসহ পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার প্রায় সব দেশের লোকেরা খেয়ে থাকে। দুই রকমের চাল বাংলায় চালু আছে- সিদ্ধ ও অসিদ্ধ বা আতপ চাল।


মোটা চালের দাম কত

বর্তমানে বাংলাদেশে গুটি স্বর্ণা এই দুই জাতের মোটা চাল পাওয়া যায়। যার চাহিদা অনেক। অনেকেই জানতে চায় মোটা চালের দাম কত। চলুন জেনে নেই মোটা চালের দাম। বর্তমান বাজারে নাজিরশাইল মোটা চালের প্রতি কেজির দাম ৮০ থেকে ৮৫ টাকা। গুটি ও স্বর্ণা মোটা চাল প্রতি কেজির দাম ৪০ থেকে ৫০ টাকা। ভালো মানের মোটা চাল প্রতি কেজির দাম ৫০ থেকে ৫৫ টাকা। এছাড়া ৫ কেজি মোটা চালের দাম ২৫০ থেকে ২৭৫ টাকা। ১০ কেজি মোটা চালের দাম ৫০০ থেকে ৫৫০ টাকা। ২৫ কেজি মোটা চালের দাম ১২৫০ থেকে ১৩৭৫ টাকা। এবং মোটা চাল ৫০ কেজির দাম ২৫০০ থেকে ২৭৫০ টাকা। তবে এর দাম একেক জায়গায় একেক রকম হতে পারে।

মোটা চালের পুষ্টি গুণ থাকে তার উপরের পাতলা খোসাতে।মোটা চালে প্রচুর ভিটামিন বি কমপ্লেক্স থাকে। আয়রন, জিঙ্গের মতো প্রয়োজনীয় খনিজও রয়েছে চালে। এমনকি বহু মোটা চালে ক্যান্সার প্রতিরোধক অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টও থাকে। এছাড়া মোটা চালে রয়েছে প্রচুর শর্করাও। তবে মিলে বারবার পালিশ করার ফলে এই পুষ্টিগুণের কোনওটাই আর চালে অবশিষ্ট থাকে না।


বাংলামতি চালের দাম কত

সাধারণত বাংলামতি এবং বাসমতি চাল একি। বাংলামতি চাল বাসমতি নামে আমরা চিনে থাকি।  অনেকেই জানতে চায় বাংলামতি চালের দাম। চলুন জেনে নেই বাংলামতি চালের দাম। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি বাংলামতি চালের দাম ২০০ থেকে ২৫০ টাকা। এছাড়া ৫ কেজি বাংলামতি চালের দাম ১০০০ থেকে ১২৫০ টাকা। ১০ কেজি বাংলামতি চালের দাম ২০০০ থেকে ২৫০০ টাকা। বাংলামতি চাল ২৫ কেজির দাম ৫০০০ থেকে ৬২৫০ টাকা। ৫০ কেজি বাংলামতি চালের দাম ১০ হাজার থেকে ১২ হাজার ৫০০ টাকা। এবং বাংলামতি চাল ১০০ কেজির দাম ২০ হাজার থেকে ২৫ হাজার টাকা। তবে এর দাম স্থানভেদে কম বেশি হতে পারে।

বাংলামতি চালে রয়েছে থিয়ামাইন এবং নায়াসিনের মতো ভিটামিন, যা হজম শক্তির উন্নতি ঘটায়। সেই সঙ্গে নার্ভাস সিস্টেম এবং হার্টকেও ভালো রাখে। শুধু তাই নয়, নিয়মিত এই চালের ভাত খাওয়া শুরু করলে সার্বিকভাবে শরীর চাঙ্গা হয়ে উটতেও সময় লাগে না। সাধারণ চালের থেকে বাংলামতি চাল হজম হতে বেশি সময় লাগে।


কাউন চালের দাম কত

কাউন বা কাউনের চাল আমাদের অনেকের পরিচিত একটি শস্য। বর্তমানে এই চালের অনেক চাহিদা রয়েছে। অনেকেই জানতে চায় কাউন চালের দাম সম্পর্কে। চলুন জেনে নেই কাউন চালের দাম। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি কাউন চালের দাম ২২৫ থেকে ২৬০ টাকা। তবে আগের তুলনায় বর্তমানে এই চালের দাম কিছুটা বাড়তে পারে। বর্তমানে ১০ কেজি কাউন চালের দাম ২২৫০ থেকে ২৬০০ টাকা। ২৫ কেজি কাউন চালের দাম ৫৬২৫ থেকে ৬৫০০ টাকা। এবং কাউন চাল ৫০ কেজির দাম ১১২৫০ থেকে ১৩০০০ টাকা। তবে এর দাম একেক জায়গায় একেক রকম হতে পারে।

কাটারি নাজির চালের দাম কত

চাল আমাদের প্রধান দানাদার খাদ্য। আমাদের প্রতিদিনকার মোট ক্যালরির বেশিরভাগ অংশই আসে চাল বা ভাত থেকে। তবে ভালো চালের মধ্যে অন্যতম হলো কাটারি নাজির চাল। অনেকেই জানতে চায় কাটারি নাজির চালের দাম কত। চলুন জেনে নেই কাটারি নাজির চালের দাম। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি কাটারি নাজির চালের দাম ৮০ থেকে ৯০ টাকা। এছাড়া ৫ কেজি কাটারি নাজির চালের দাম ৪০০ থেকে ৪৫০ টাকা। ১০ কেজি কাটারি নাজির চালের দাম ৮০০ থেকে ৯০০ টাকা। ২৫ কেজি কাটারি নাজির চালের দাম ২০০০ থেকে ২২৫০ টাকা। এবং ৫০ কেজি কাটারি চালের দাম ৪০০০ থেকে ৪৫০০ টাকা। তবে এর আগের তুলনায় বর্তমানে কম বেশি হতে পারে।

বিরিয়ানি চালের দাম কত

বিরিয়ানি চালের পরিমাণ    বাজার মূল্য
    ১ কেজি                    ২৫০ টাকা
         ১০ কেজি            ২৫০০ টাকা
         ২৫ কেজি                         ৬২৫০ টাকা
         ৫০ কেজি                      ১২৫০০ টাকা
         ১০০ কেজি                  ২৫০০০ টাকা
         ১০০০ কেজি             ২৫০০০০টাকা
এর দাম একেক জায়গায় একেক রকম হতে পারে।

বিন্নি চালের দাম কত

বিন্নি চাল কে হোল গ্রেইন (whole grain) হিসেবে গণ্য করা হয়। বর্তমানে বিন্নি চালের অনেক চাহিদা রয়েছে। অনেকেই জানতে চায় বিন্নি চালের দাম সম্পর্কে। চলুন জেনে নেই বিন্নি চালের দাম। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি বিন্নি চালের দাম ১৩০ থেকে ২৩০ টাকা পর্যন্ত। সাধারণত বিন্নি চাল কয়েক ধরণের হয়ে থাকে। বর্তমানে লাল বিন্নি চাল প্রতি কেজির দাম ১৩০ টাকা। সাদা বিন্নি চাল প্রতি কেজির দাম ১৫০ টাকা এবং কালো বিন্নি চাল প্রতি কেজির দাম ২৩০ টাকা। এছাড়া লাল বিন্নি চাল ১০ কেজির দাম ১৩০০ টাকা। সাদা বিন্নি চাল ১০ কেজির দাম১৫০০ টাকা এবং কালো বিন্নি চাল ১০ কেজির দাম ২৩০০ টাকা। তবে এর দাম একেক জায়গায় একেক রকম হয়ে থাকে।
পুষ্টিগুণের দিক থেকে বিন্নি চালের বিশেষত্ব হল এতে অন্য সব চালের তুলনায় ক্যালোরি ও কার্বোহাইড্রেট কম থাকে। এই চালের গ্লাইসেমিক ইনডেক্স অন্য সব চালের তুলনায় বেশ কম। তাই কিছুটা বেশি খেলেও ডায়াবেটিস বেড়ে যাবার বা মুটিয়ে যাবার ভয় কম। এছাড়াও বিন্নি চাল অন্য অনেক খাদ্য গুনে ভরপুর। রোগ প্রতিরোধে সেরা বিন্নি চাল ক্যানসাররোধী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যেমন অ্যানথোসায়ানিন বা ফ্ল্যাভেনয়েডে পরিপূর্ণ।

সিদ্ধ চালের দাম কত

বর্তমানে সিদ্ধ চালের অনেক চাহিদা। তবে আগের তুলনায় অন্যান্য চালের পাশাপাশি সিদ্ধ চালের দামও কিছুটা বেড়েছে। অনেকেই জানতে চায় সিদ্ধ চালের দাম কত। চলুন জেনে নেই সিদ্ধ চালের দাম। বর্তমান বাজারে মোটা চাল সিদ্ধ প্রতি কেজির দাম ৪৮ থেকে ৫০ টাকা এবং এর পাইকারি মূল্য ৪২ থেকে ৪৭ টাকা কেজি। মোটা চাল সিদ্ধ ১০ কেজির দাম  ৪৮০ থেকে ৫০০ টাকা। মোটা চাল সিদ্ধ ২৫ কেজির দাম  ১২০০ থেকে ১২৫০ টাকা। এছাড়া খান জিরা সিদ্ধ চাল প্রতি কেজির দাম ৭৫ থেকে ৮০ টাকা। খান জিরা সিদ্ধ চাল ১০ কেজির দাম ৭৫০ থেকে ৮০০ টাকা।এবং খান জিরা সিদ্ধ চাল ২৫ কেজির দাম ১৮৭৫ থেকে ২০০০ টাকা। এছাড়া বাসমতি সিদ্ধ চাল প্রতি কেজির দাম ২০০ টাকা। বাসমতি সিদ্ধ চাল ১০ কেজির দাম ২০০০ টাকা।বাসমতি সিদ্ধ চাল ২৫ কেজির দাম ৫০০০ টাকা। এবং বাসমতি সিদ্ধ চাল ৫০ কেজির দাম ১০০০০ টাকা। তবে এর দাম স্থানভেদে কম বেশি হতে পারে।
সিদ্ধ চালে অনেক গুনাগুন রয়েছে। সিদ্ধ চাল খুব সহজে হজম হয়ে যায় বলে ডায়রিয়া, কোষ্ঠকাঠিন্য ইত্যাদি রোগ সারাতে সিদ্ধ চালের ভাত সহায়ক।

চিকন চালের দাম কত

বর্তমানে বাংলাদেশে চিকন চালের অনেক চাহিদা। তবে চিকন চালের অনেক চাহিদা থাকার কারণে বর্তমানে আগের তুলনায় এর দাম কিছুটা বেশি। অনেকেই জানতে চায় চিকন চালের দাম কত। চলুন জেনে নেই চিকন চালের দাম। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি চিকন চালের দাম ৭০ থেকে ৮০ টাকা। এছাড়া ১০ কেজির চিকন চালের দাম ৭০০ থেকে ৮০০ টাকা। ২৫ কেজি চিকন চালের দাম ১৭৫০ থেকে ২০০০ টাকা। ৫০ কেজি চিকন চালের দাম ৩৫০০ থেকে ৪০০০ টাকা। এবং প্রতি বস্তা নাজিরশাইল চিকন চালের দাম ৩৫০০ থেকে ৩৬০০ টাকা। তবে এর দাম একেক জায়গায় একেক দাম হতে পারে।
সাধারণত মিনিকেট চাল এবং চিকন চাল একি রকম। বর্তমানে মিনিকেট চাল চিকন চাল নামে পরিচিত। এই চিকন চাল বা মিনিকেট চাল দিয়ে ভাত রান্নার পাশাপাশি বিরিয়ানি, পোলাও, পায়েসসহ আরো অনেক ধরণের খাবার বানানো যায়। তাই এই চালের অনেক চাহিদা।

কালোজিরা চালের দাম কত

কালোজিরা চাল আমাদের সকলের কাছে অনেক পরিচিত। বর্তমানে বাংলাদেশে প্রায় সকল মানুষ এই কালোজিরা চাল পছন্দ করে থাকে। অনেকেই জানতে চায় কালোজিরা চালের দাম কত। চলুন জেনে নেই কালোজিরা চালের দাম। বর্তমান বাজারে  প্রতি কেজি কালোজিরা চালের দাম ১২০ থেকে ১৪০ টাকা। এছাড়া কালোজিরা চাল ৫ কেজির দাম ৬০০ থেকে ৭০০ টাকা। ১০ কেজি কালোজিরা চালের দাম ১২০০ থেকে ১৪০০ টাকা। ২৫ কেজি কালোজিরা চালের দাম ৩০০০ থেকে ৩৫০০ টাকা। ৫০ কেজি কালোজিরা চালের দাম ৬০০০ থেকে ৭০০০ টাকা। এবং ১০০ কেজি কালোজিরা চালের দাম ১২হাজার থেকে ১৪ হাজার টাকা। তবে এর কোনো কোনো জায়গায় কম বেশি হতে পারে।

সুগন্ধি চালের দাম কত

সাধারণত আমরা সুগন্ধি চালকে চিনিগুড়া চাল নামে চিনে থাকি। বর্তমানে সুগন্ধি চালের অনেক চাহিদা। অনেকেই জানতে চায় সুগন্ধি চালের দাম কত। চলুন জেনে নেই সুগন্ধি চালের দাম। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি কাটারিভোগ সুগন্ধি চালের দাম ১৫০ থেকে ১৬০ টাকা। এছাড়া প্রান চিনিগুড়া সুগন্ধি চাল প্রতি কেজির দাম ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা। মোজাম্মেল চিনিগুড়া সুগন্ধি চাল প্রতি কেজির দাম ১৫০ টাকা। সাগর স্পেসাল চিনিগুড়া সুগন্ধি চালের দাম ১২০ থেকে ১২৫ টাকা। তবে এর দাম একেক জায়গায় একেক রকম হতে পারে।
সুগন্ধি চাল এতে রয়েছে থিয়ামাইন এবং নায়াসিনের মতো ভিটামিন, যা হজমশক্তির উন্নতি ঘটায়, সেই সঙ্গে স্নায়ু সিস্টেম এবং হৃদ্‌যন্ত্রকেও ভালো রাখে। ফাইবারসমৃদ্ধ হওয়ার কারণে কোষ্ঠকাঠিন্যসহ নানা ধরনের পেটের রোগ সারাতে সুগন্ধি, বিশেষ করে বাসমতী চাল গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। এই উপাদান হজমক্ষমতার উন্নতি ঘটাতেও বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

স্বর্ণা চালের দাম কত

বর্তমানে অনেকেই স্বর্ণা চাল কিনে থাকে। সাধারণত স্বর্ণা চাল মোটা হয়ে থাকে। স্বর্ণা চাল মোটা চালের একটি জাত। অনেকেই জানতে চায় স্বর্ণা চালের দাম কত। চলুন জেনে নেই স্বর্ণা চালের দাম। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি স্বর্ণা চালের দাম ৪০ থেকে ৫০ টাকা। এছাড়া ৫ কেজি স্বর্ণা চালের দাম ২০০ থেকে ২৫০ টাকা। ১০ কেজি স্বর্ণা চালের দাম ৪০০ থেকে ৫০০ টাকা। ২৫ কেজি স্বর্ণা চালের দাম ১০০০ থেকে ১২৫০ টাকা। ৫০ কেজি স্বর্ণা  চালের দাম ২০০০ থেকে ২৫০০ টাকা এবং স্বর্ণা চাল ১০০ কেজির দাম ৪০০০ থেকে ৫০০০ টাকা। তবে এর দাম বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন রকম হতে পারে।
স্বর্ণা চালে অনেক পুষ্টি রয়েছে। স্বর্ণা চালের রয়েছে ম্যাগনেসিয়াম, পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম এবং আয়রনে ভরপুর স্বর্ণা চাল হজমশক্তি বৃদ্ধি করে। রয়েছে উপকারী অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট স্বর্ণা চাল- স্বর্ণান চালের উপকারিতা নানাবিধ। প্রথমত,স্বর্ণা চালে প্রচুর পরিমাণে বি ভিটামিন রয়েছে যা শরীরে প্রয়োজনীয় লোহিত কণিকা এবং সেরোটোনিন উৎপাদন করে।

নুরজাহান চালের দাম কত

অনেকেই নুরজাহান চাল কিনে থাকে। এই চাল অনেক আগে বাংলাদেশে চলে আসছে। এই চালের চাহিদা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। অনেকেই জানতে চায় নুরজাহান চালের দাম কত। চলুন জেনে নেই নুরজাহান চালের দাম। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি নুরজাহান চালের দাম ৪০ থেকে ৪৫ টাকা। অন্যান্য চালের তুলনায় নুরজাহান চালের দাম কিছুটা কম। বর্তমানে ৫ কেজি নুরজাহান চালের দাম ২০০ থেকে ২২৫ টাকা। এছাড়া ১০ কেজি নুরজাহান চালের দাম ৪০০ থেকে ৪৫০ টাকা। ২৫ কেজি নুরজাহান চালের দাম ১০০০ থেকে ১১২৫ টাকা। এবং ৫০ কেজি নুরজাহান চালের দাম ২০০০ থেকে ২২৫০ টাকা। এছাড়া ৫০ কেজির একটি বস্তার দাম হলো২৩৩০ টাকা। তবে এর দাম একেক জায়গায় একেক রকম হতে পারে।
 
আশা করি আপনারা আমাদের এই পোস্ট থেকে নাজিরশাইল, ২৮, ২৯, লাল, পাইজাম, আতপ ও বিন্নি চালের দাম, কালোজিরা চালের দাম, সিদ্ধ চালের দাম, চিকন চালের দাম, বিরিয়ানি চালের দাম, স্বর্ণা চালের দাম এবং আরো অনেক বিভিন্ন চালের দাম সম্পর্কে জানতে পেড়েছেন। আমাদের এই পোস্টে বিভিন্ন চালের দাম সম্পর্কে বিস্তারিত দেওয়া আছে। আশা করি আমাদের এই পোস্টটি আপনাদের ভালো লেগেছে। পুড়ো পোস্টটি ধৈর্য ধরে সম্পূর্ণ পড়ার জন্য ধন্যবাদ। 

একই ধরনের পোস্ট

×