কাঠ বাদামের দাম কত

কাঠ বাদামের দাম কত ২০২৪

Last Updated:3 months ago

আশা করি সকলে ভালো আছেন। আজকে আমরা কাঠ বাদামের দাম কত এই সম্পর্কে আলোচনা করবো। আমাদের দেশে বর্তমান সময়ে বিভিন্ন ধরনের খাবার তৈরি করে তার স্বাধ ও ঘ্রান বাড়াতে কাঠ বাদাম এর ব্যবহার দেখা যায়। যে কোন বিয়ে বাড়ি থেকে শুরু করে অনেক ধরনের অনুষ্ঠানের বিভিন্ন ধরনের খাবারে কাঠ বাদাম ব্যবহার করা হয়। শুধু যে ঝাল খাবার কাঠ বাদাম ব্যবহার করা হয় তাই নয়। এমনকি মিষ্টি খাওবারে ও কাঠ বাদাম এর ব্যবহার আমাদের বাংলাদেশে প্রচুর পরিমাণে প্রচলিত। অনেকেই কাঠ বাদামের দাম সম্পর্কে জানতে চায়। আজকে আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে জানিয়ে দিবো কাঠ বাদামের দাম কত। 

কাঠ বাদামের দাম কত

কাঠ বাদাম উচ্চমানের পুষ্টির জন্য জনপ্রিয়। আপনি যদি আপনার খাবারে প্রতিদিন অল্প পরিমাণ বাদাম যোগ করেন তবে তা আপনার প্রতিদিনের পুষ্টি বাড়িয়ে তুলবে। এছাড়াও এতে প্রচুর ভিটামিন এবং পটাসিয়াম রয়েছে।বর্তমান বাংলাদেশে প্রচুর কাঠ বাদাম পাওয়া যায়। এবং অনেক ধরণের কাঠ বাদাম পাওয়া যায়। একেক ধরণের কাঠ বাদামের দাম একেক রকম হয়ে থাকে। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি কাঠ বাদামের দাম ৭০০ থেকে ৮৫০ টাকায় বিক্রি হয়ে থাকে। তবে এর দাম একেক জায়গায় একেক রকম হতে পারে।

ডারাজ থেকে অর্ডার করুনঃ  কাঠ বাদাম


100 গ্রাম কাঠ বাদামের দাম কত

অনেক আগে থেকে প্রাচিন কাল থেকে আমাদের দেশে কাঠ বাদামের ব্যবহার হয়ে আসছে। বর্তমানে আমাদের দেশে কাঠ বাদাম উৎপাদন হয়ে থাকে। এমনকি ,মায়ানমার,ইন্ডিয়া থেকে কাঠ বাদাম আমদানি করা হয়ে থাকে। কাঠ বাদাম অনেক পুষ্টিকর একটি খাদ্য হওয়ায় এটি বিভিন্ন ঘরোয়া খাবার এবং বিভিন্ন মিষ্টান্ন বানাতে ব্যবহৃত হয়।কাঠ বাদামের অনেক চাহিদা থাকায় এটির দামও কিছুটা বেড়েছে। অনেকেই জানতে চায় ১০০ গ্রাম কাঠ বাদামের দাম কত। আজকে আমরা জানিয়ে  দিবো ১০০ গ্রাম কাঠ বাদামের দাম কত।

কাঠ বাদামের অনেক গুনাগুন থাকায় বাংলাদেশে এর চাহিদা অনেক বেশি। এবং আগের তুলনায় এর দামও কিছুটা বেড়েছে। আগে বাংলাদেশে ১০০ গ্রাম কাঠ বাদাম বিক্রি হতো ৭০ থেকে ৮০ টাকার মধ্যে। এখন বর্তমান বাজারে ১০০ গ্রাম কাঠ বাদামের দাম ৯০ থেকে ১১০ টাকায় বিক্রি হয়ে থাকে।তবে এর দাম একেক জায়গায় একেক রকম হয়ে থাকে। 


১ কেজি কাঠ বাদামের দাম কত

আমাদের দেশে বর্তমান সময়ে বিভিন্ন ধরনের খাবার দাবার তৈরি করে তার স্বাধ ও ঘ্রান বাড়াতে কাঠ বাদামের ব্যবহার দেখা যায়। যে কোন বিয়ে বাড়ি থেকে শুরু করে অনেক ধরনের অনুষ্ঠানের বিভিন্ন ধরনের খাবারে কাঠ বাদাম ব্যবহার করা হয়। কাঠ বাদাম ঝাল খাবারের পাশাপাশি অনেক ধরণের মিষ্টি খাওবারে ও কাঠ বাদাম এর ব্যবহার আমাদের বাংলাদেশে প্রচুর পরিমাণে প্রচলিত। অনেকেই জানতে চায় ১ কেজি কাঠ বাদামের দাম। চলুন জেনে নেই ১ কেজি কাঠ বাদামের দাম কত।

বর্তমানে বাংলাদেশে কাঠ বাদামের অনেক চাহিদা থাকায় এর দামও আগের তুলনায় একটু বেড়েছে। আগে ১ কেজি কাঠ বাদাম পাওয়া যেতো ৬০০ থেকে ৭০০ টাকার মধ্যে।কিন্ত বর্তমান বাজারে ১ কেজি কাঠ বাদামের দাম ৮০০ টাকা থেকে ১০০০ টাকা।


কাঠ বাদাম তেলের দাম কত

কাঠ বাদাম দিয়ে শুধু যে খাবার তৈরি করা হয় না কাঠ বাদাম দিয়ে তেলও তৈরি করা হয়।বাদাম তেল অনেক সম্ভাব্য স্বাস্থ্য উপকারিতা সহ একটি সন্তোষজনক খাবার। এই সুস্বাদু গাছের বাদাম থেকে যে তেলটি আসে তা সাধারণত ত্বক এবং চুলের যত্নে একটি প্রাকৃতিক উপাদান হিসাবে ব্যবহৃত হয়, তবে খুব কম লোকই বুঝতে পারে যে এটি আপনার স্বাস্থ্যের জন্যও ভাল হতে পারে। বাদাম হল প্রুনাস ডুলসিস গাছের ভোজ্য বীজ, যা সাধারণত বাদাম গাছ নামে পরিচিত।অনেকেই এই কাঠ বাদামের তেলের দাম জানতে চায়।চলুন জেনে নেই কাঠ বাদাম তেলের দাম।

কাঠ বাদামের তেলের অনেক উপকারিতা রয়েছে তাই এর চাহিদা অনেক। দুই ধরণের কাঠ বাদাম তেল হয়ে থাকে। বর্তমান বাজারে সাধারণ কাঠ বাদামের তেলের ৫০-১০০ মিলির দাম ২৬০ টাকা থেকে ৫২০ টাকা। এবং ভালো কোয়ালিটির ১২০ মিলির দাম ৬৮০ টাকা থেকে ৮০০ টাকা। তবে এর দাম একেক জায়গায় একেক রকম হয়ে থাকে।


কাঠ বাদাম খাওয়ার নিয়ম

কাঠ বাদাম অনেক পুষ্টিগুন এবং শারীরিক উপকারিতা সমৃদ্ধ বাদাম। এর চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলেছে। থাকি।প্রতিদিন কেউ নিয়ম করে এক মুঠো কাঠ বাদাম খেলে তার শরিরের পুষ্টিকর উপাদানের ঘাটতি দূর হয়। এছাড়া আরো অনেক উপকারিতা পাওয়া যায়। অনেকেই জানতে চায় কাঠ বাদাম কিভাবে খেতে হয়। চলুন জেনে নেই কাঠ বাদাম খাওয়ার নিয়ম।

একটি বড় পাত্রে ২ কাপ পানি নিতে হবে। এমনভাবে পানি দিতে হবে যেন বাদামের ২ ই উপরে থাকে।তার পর সামুদ্রিক লবণ দিয়ে কিছু সময় নেড়ে দিতে হবে। ১২-১৪ ঘন্টা পর লবণ পানি ফেলে দিয়ে, খাবার পানি দিয়ে ভালো ভাবে ধুয়ে নিতে হবে। তারপর রৌদ্রে দিয়ে ভালোভাবে শুকিয়ে নিতে হবে যেন একটু ভেজা না থাকে। এরপর এয়ার টাইট বক্সে রেখে নিয়মিত খেলে কাট বাদামের পুষ্টিগুণ পাওয়া যায়। তবে এটি খুব বেশি পরিমানে খাওয়া উচিত না খুব বেশি পরিমানে খেলে উপকারে পরিবর্তে অপকার হতে পারে।


কাঠ বাদামের উপকারিতা ও অপকারিতা

কাঠ বাদাম অনেক পুষ্টিকর এবং জনপ্রিয় একটি খাবার।কাঠ বাদামের অনেক চাহিদা।কাঠ বাদাম সারা বছর পাওয়া যায়। কাঠ বাদাম সঠিকভাবে সংরক্ষন করে নিয়মিত খেলে এটি সাস্থ্যের অনেক উপকার করে থাকে। কাঠ বাদাম অনেক পুষ্টিকর একটি খাবার।কাঠ বাদামের অনেক উচ্চ মাত্রায় ক্যালারি রয়েছে। অনেকেই জানতে চায় কাঠ বাদাম খাওয়ায় কি কি উপকারিতা ও অপকারিতা রয়েছে। চলু জেনে নেই কাজু বাদামের উপকারিতা ও অপকারিতা।

  • ভেজানো কাঠবাদাম হজম শক্তি বাড়াতে সাহায্য করে।
  • প্রয়োজনীয় এনজাইম নিঃসরণে সাহায্য করে।
  • কাঠবাদাম ওজন কমাতে অনেক ভূমিকা পালন করে। এতে উপস্থিত মনোস্যাচুরেটেড ফ্যাট খিদে কমায় এবং দীর্ঘক্ষন ধরে পেট ভরিয়ে রাখে।
  • কাঠবাদাম হৃদপিণ্ড ভালো রাখতে সাহায্য করে। এবং ক্ষতিকারক কোলেস্টরেল।। নিয়ন্ত্রণ করে।
  • কাঠবাদাম ক্যান্সার প্রতিরোধে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
  • এ যেন কাঠবাদামে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট শরীরের ফোলা ভাব কমায় এবং অকালপক্কতা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে।
  • বাদামে উপস্থিত শরীরে টিউমার প্রতিরোধে সহায়তা করে।
  • কাঠ বাদামের তেল খুবই উপকারী। এটি ত্বক এবং চুলের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে।
  • গর্ভাবস্থায় পানিতে ভেজানো কাঠবাদাম খেলে তা সন্তান এবং মা-দুজনের শরীরের জন্য অনেক ভালো ।

কাঠ বাদামের যেমন উপকারিতা রয়েছে তেমনি অপকারিতা রয়েছে। চলুন জেনে নেওয়া যাক অপকারিতা।

বাদামের উপকারিতা ও অপকারিতা নিবন্ধে বাদামের উপকারিতায় আমরা আগেই জেনেছি, এতে উচ্চ প্রোটিন ও ফ্যাট থাকে। তাই মাত্রাতিরিক্ত বাদাম খেলে আপনি কিন্তু মোটা হয়ে যেতে পারেন। কাঠ বাদাম ওজন কমায় পাশাপাশি বেশি খেলে ওজন বাড়াতেও পারে। এছাড়াও অন্যান্য বাদাম রয়েছে যা সঠিক মাত্রায় না খেলে ওজন বৃদ্ধি করতে পারে। তাই নিয়মিত খাবারের তালিকায় বাদাম যোগ করলে চার ভাগের এক ভাগ রাখুন।


বর্তমান বাংলাদেশে কাঠ বাদামের চাহিদা ও কাঠ বাদামের দাম দিন দিন বেড়েই চলেছে। আশা করি আপনারা আমাদের এই পোস্ট থেকে কাঠ বাদামের দাম সম্পর্কে জানতে পেড়েছেন। আমাদের এই পোস্টে কাঠ বাদামের উপকারিতা ও অপকারিতা এবং কাঠ বাদামের দাম সম্পর্কে বিস্তারিত দেওয়া আছে। আশা করি আমাদের এই পোস্টটি আপনাদের ভালো লেগেছে।পুড়ো পোস্টটি ধৈর্য ধরে পড়ার জন্য ধন্যবাদ। 



একই ধরনের পোস্ট

×