পোলাও চালের দাম কত

পোলাও চালের দাম কত ২০২৪

Last Updated:4 months ago

আসসালামু আলাইকুম আশা করি সকলে ভালো আছেন। আজকে আমরা পোলাও চালের দাম কত এই সম্পর্কে আলোচনা করবো। বর্তমানে প্রায় সবাই পোলাও এর চাল ব্যবহার করে থাকে। পোলাও এর চালের চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলেছে। সাধারণত  চিনি গুড়া চালকেই পোলাও এর চাল বলা হয়। বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠান তথা স্পেশাল দিনে খাবার তালিকায় পোলাও প্রধান অনুষঙ্গ। এ চালের ভাত , পোলাও বা খিচুরি অত্যধিক সুস্বাধু  ও মিষ্টি ভাব থাকায় একে চিনিগুঁড়া কিংবা পোলাও এর চাল  বলা হয়। অনেকেই জানতে চায় পোলাও চালের দাম কত। আজকে আমরা জানিয়ে দিবো পোলাও চালের দাম কত

পোলাও চালের দাম কত

পোলাও চাল বিভিন্ন ধরণের পোলাও,পায়েস, বিরিয়ানি রান্নায় ব্যবহার করা হয় এই চাল। বর্তমানে এই চালের অনেক চাহিদা থাকায় এর দামও কিছুটা বেড়েছে। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি পোলাও চালের দাম ১২০ থেকে ১৫০ টাকা। এই চাল আগে ৮০ থেকে ১০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যেতো। এছাড়া ৫ কেজি পোলাও চালের দাম ৬০০ থেকে ৭৫০ টাকা। পোলাও চাল ১০ কেজির দাম ১২০০ থেকে ১৫০০ টাকা। এবং ২৫ কেজি পোলাও চালের দাম ৩০০০ থেকে ৩৭০০ টাকার উপরে। তবে এর দাম প্রায়ই কম বেশি হয়ে থাকে এবং একেক জায়গায় একেক রকম দাম হয়ে থাকে।


চাষী পোলাও চাল দাম কত

চাষী পোলাও চাল বর্তমান বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে চাষী পোলাও চাল। অনেকেই জানতে চায় চাষী পোলাও চালের দাম কত। চলুন জেনে নেই চাষী পোলাও চালের দাম। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি চাষী পোলাও চালের দাম ১৩০ থেকে ১৪০ টাকা। এছাড়া ৫ কেজি চাষী পোলাও চালের দাম ৬৫০ থেকে ৭০০ টাকা। চাষী পোলাও চাল ১০ কেজির দাম ১৩০০ থেকে ১৪০০ টাকা। ২৫ কেজি চাষী পোলাও চালের দাম ৩২৫০ থেকে ৩৫০০ টাকা। এবং ৫০ কেজি চাষী পোলাও চালের দাম ৬৫০০ থেকে ৭০০০ টাকা। তবে এর দাম কোয়ালিটি হিসেবে কম বেশি হতে পারে।

চিনি গুড়া অর্থাৎ পোলাও চাল হিসাবে আমাদের অনেকের কাছে পরিচিত এই চাউল। এই পোলাও চালের এর মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় একটি চাল হলো চাষী পোলাও চাল। এই গুনে মানে অনেক ভালো তাই এর চাহিদা অনেক। এই চাল অন্যান্য চালের থেকে অনেক আলাদা। প্রায় সবাই কম বেশি এই চাষী পোলাও চাল পছন্দ করে থাকে।


১ কেজি পোলাও চালের দাম কত

বর্তমানে সকল চাউলের দাম বাড়ার ক্ষেত্রে চিনি গুড়া কিংবা চাউলের দামও তুলনামূলক ভাবে অনেক বেশি। অনেকে পোলাও চালের দাম বেশি থাকার কারণে এই চাল কিনা বন্ধ করে দিয়েছিল। কিন্তু প্রয়োজনের জন্য এই চাল অনেকেই কিনে থাকেন। তাই আপনি যেন পোলাও চাউল সঠিক দামে কিনতে পারেন আপনাদের সাহায্য করার জন্য আমরা আপনাদের কে জানিয়ে দেবো পোলাও চালের সঠিক দাম সম্পর্কে। চলুন জেনে নেই ১ কেজি পোলাও চালের দাম।

আগের তুলনায় বর্তমানে পোলাও চালের দাম তুলনামূলকভাবে কিছুটা বেশি। বর্তমান বাজারে প্রাণ পোলাও চাল ১ কেজির দাম ১২০ থেকে ১৫০ টাকা।

চাষী পোলাও চাল ১ কেজির দাম ১৩০ থেকে ১৪০ টাকা।

ফ্রেশ পোলাও চাল ১ কেজির দাম ১৫০ থেকে ১৭০ টাকা।

প্রিমিয়াম পোলাও চাল ১ কেজির দাম ১২০ থেকে ১৩০ টাকা।

এলিট পোলাও চাল ১ কেজির দাম ১৬০ থেকে ১৮০ টাকা।

আরং পোলাও চাল ১ কেজির দাম ১৪০ থেকে ১৬০ টাকা।

মোজাম্মেল পোলাও চাল ১ কেজির দাম ৯০ থেকে ১১০ টাকা।


১ কেজি পোলাও চালে কতজন খেতে পারে

অনেক সময় দেখা যায় আমরা অনেক জায়গায় গুরতে যাই কিংবা বাসা বাড়িতে অনেকেই একসাথে মিলে অনুষ্ঠান করে থাকি। তবে কত কেজি চালের কত জনের খাবার হয় এইটা না জানার কারণে অনেক সময় সমস্যা হয়ে থাকে। সেই জন্য অনেকেই জানতে চায় ১ কেজি পোলাও চালে কতজন খেতে পারে। চলুন জেনে নেই ১ কেজি পোলাও চালে কতজন খেতে পারে।

সাধারণত ভাতের চাল এবং পোলাও এর চাল আলাদা। ১ কেজি চালের ভাত ৬ থেকে ৭ জন খেতে পারে এবং ১ কেজি চালের পোলাও ৪ থেকে ৫ খেতে পারে। এছাড়া ৫ কেজি পোলাও এর চাল ২০ থেকে ২৫ জন খেতে পারে এবং ১০ কেজি পোলাও এর চাল ৪০ থেকে ৫০ জন খেতে পারে।

 

১ কেজি পোলাও চালে কতটুকু পানি লাগে

আমাদের দৈনন্দিন খাবারের মধ্যে পোলাও অন্যতম। বিয়ে বাড়িসহ বিভিন্ন ঘরোয়া অনুষ্ঠানে পোলাও তৈরি করা হয়। পোলাওয়ের ভেরিয়েশন খুব একটা দেখা যায় না। হাতে গোনা যত ধরনের পোলাও আছে তার মধ্যে প্লেইন পোলাও তৈরি করা খুবই সহজ এবং বাসাবাড়িতেও তৈরি হয় অহরহ। অনেকেই জানতে চায় ১ কেজি পোলাও এর চালে কতটুকু পানি লাগে। চলুন জেনে নেই ১ কেজি পোলাও চালে কতটুকু পানি লাগে।

সাধারণত চালের পরিমাণ হিসেবে পানি দিতে হয়। ১ কাপ চালে ২ কাপ পানি লাগে। তাহলে ১  কেজি চালে পানি লাগে ৫০০ গ্রাম কিংবা ৫-৬ কাপ। এছাড়া ২ কেজি চালে পানি লাগে ১০০ গ্রাম কিংবা ১০-১২ কাপ। তবে এর থেকে কম বেশি লাগতে পারে।


পোলাও চালের উপকারিতা

চাল একটি শস্যদানা যা আমরা ধান থেকে পেয়ে থাকি। চালের মধ্যে অন্যতম হলো পোলাও এর চাল যা আমরা চিনিগুড়া চাল নামে চিনে থাকি। কম বেশি সকলেই পোলাও খেতে পছন্দ করে থাকে। পোলাও চাল অনেক ধরণের হয়ে থাকে। একেক চালে একেক রকম উপকারিতা পাওয়া যায়। অনেকেই জানতে চায় পোলাও চালের উপকারিতা। চলুন জেনে নেই পোলাও চালের উপকারিতা।

পোলাও চাল একটি শস্যদানা যা আমরা ধান থেকে পেয়ে। ফলনশীল শস্যের মধ্যে ধান সবচেয়ে বেশি ফলানো হয় আমাদের দেশে। প্রতিদিনকার আহারে জনপ্রতি মানুষের ১০০ থেকে ১৫০ গ্রাম ভাত প্রয়োজন হয়। তাহলে তিন বেলার হিসেব দাড়াছে আরো দ্বিগুণ।

প্রায় সকলেই পোলাও পছন্দ করে।পেট ও মন দুটোই ভরে পোলাও খাওয়ার মাধ্যম এ। চাল থেকে রান্না করা ভাত আমাদের প্রতিদিন খাবারের একটি অতি প্রয়োজনীয় অংশ। ভাত ছাড়া বাঙালির চলেই না। তবে অনেকেই আছে যারা নিয়মিত পোলাও খেয়ে থাকে।

আর পোলাও বলতে আমরা ছোট চালের ভাতকেই বুঝি। বিশেষ করে কুমিল্লা, এবং সিলেট বিভাগের মানুষ পোলাও বেশি খেয়ে থাকে। পোলাও খাওয়ার জন্য আমরা মূলত চিনিগুড়া চালকেই বেছে নিই। কারন পোলাও ঝরঝর,  চিকন এবং দেখতে ধবধবে সাদা। মূলত এখানে আমরা চোখের গুরুত্বকে বেশি প্রাধান্য দেয়া হয় পুষ্টিকে নয়। কারণ পোলাও চালের পুষ্টিগুন বিচারে ভাতের চালের ভাত থেকে কয়েক গুন বেশি উপকারী।


পোলাও চালের পুষ্টিগুণ

১০০ গ্রাম সিদ্ধ চালের ভাত থেকে আপনি পাবেন 

১২৩ গ্রাম ক্যালরি,

২৬ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট,

১ গ্রাম ফ্যাট, এবং

প্রোটিন ৩ গ্রাম।

শুধু আমাদের বাংলাদেশে না বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পোলাও খুব জনপ্রিয়। এবং পোলাও এর চালেরও অনেক জনপ্রিয়তা রয়েছে।


আশা করি আপনারা আমাদের এই পোস্ট থেকে পোলাও চালের দাম, উপকারিতা এবং আরো কিছু বিস্তারিত জানতে পেরেছেন । আশা করি আমাদের এই পোস্টটি আপনাদের ভালো লেগেছে। পুড়ো পোস্টটি ধৈর্য ধরে সম্পূর্ণ পড়ার জন্য ধন্যবাদ। 


একই ধরনের পোস্ট

×