রামবুটান ফলের দাম কত

রামবুটান ফলের দাম কত ২০২৪

Last Updated:4 months ago

আসসালামু আলাইকুম আশা করি সকলে ভালো আছেন। আজকে আমরা রামবুটান ফলের দাম কত এ সম্পর্কে আলোচনা করবো। রামবুটান  অনেক সুস্বাদু একটি ফল। এক সময় রাম্বুটান আমাদের দেশে একটি বিদেশী ফল, এখন আমাদের দেশের জমিতে চাষ করার কারণে এটি আমাদের দেশে পাওয়া যায় এবং আমরা এটি সস্তা এবং যুক্তিসঙ্গত মূল্যে খেতে পারি।কাঁচা অবস্থায় সবুজ, পাকলে লাল। এটি দেখতে অনেকটা কদম ফুলের মতো। এই ফল স্বাদ এবং গন্ধে অতুলনীয়। বর্তমানে বাংলাদেশে এই ফলের অনেক চাহিদা রয়েছে। অনেকেই জানতে চায় রামবুটান ফলের দাম কত। চলুন জেনে নেই রামবুটান ফলের দাম কত

রামবুটান ফলের দাম কত

বর্তমানে বাংলাদেশে নেত্রকোনা এবং নরসিংদি জেলায় রামবুটান চাষ হয়ে থাকে। কয়েক বছর আগেও বাংলাদেশে এই ফল অনেকেই চিনতো না। তবে বর্তমানে বাংলাদেশে চাষ হওয়ায় এই রামবুটান ফল প্রায় সকলেই চিনে। এই ফল বাংলাদেশে চাষ হওয়ায় বাংলাদেশে অনেক জায়গায় এই ফল পাওয়া যায়। তবে একেক জায়গায় এর দাম একেক রকম হতে পারে। বর্তমান বাজারে প্রতি কেজি রামবুটান ফলের দাম ৫০০ থেকে ৭০০ টাকার। এছাড়া ৫ কেজি রামবুটান ফলের দাম ২৫০০ থেকে ৩৫০০ টাকা। ১০ কেজি রামবুটান ফলের দাম ৫০০০ থেকে ৭০০০ টাকা। এবং ৫০ কেজি রামবুটান ফলের দাম ২৫ হাজার থেকে ৩৫ হাজার টাকা। তবে এর দাম বর্তমানে কম বেশি হতে পারে।


রামবুটান গাছের দাম কত

রামবুটান অনেক সুস্বাদু ফল হওয়ায় এবং এর চাহিদা অনেক বেশি হওয়ায় বর্তমানে বাংলাদেশে এই ফল চাষ হচ্ছে। বাংলাদেশে অনেক জায়গায় এই ফল পাওয়া যায়। এবং অনেকেই অন্য দেশ থেকে আমদানি করে থাকে এই ফল। এই ফল চাষ করে চাষীরা প্রতি বছর অনেক টাকা লাভ করছে। অনেকেই এই ফল চাষ করতে চায় কিন্ত অধিকাংশ মানুষ এই রামবুটান গাছের দাম সম্পর্কে জানে না। অনেকেই জানতে চায় রামবুটান চারার দাম কত। চলুন জেনে নেই রামবুটান গাছের দাম ।

বর্তমানে প্রতিটি রামবুটান গাছের দাম ৭৫০ থেকে ৭৭০ টাকা। এছাড়া ৫ টি রামবুটান গাছের দাম ৩৭৫০ থেকে ৩৮৫০ টাকা। অনেকেই বেশি পরিমাণে রামবুটান গাছ ক্রয় করতে চায়। ১০ টি রামবুটান ফল গাছের দাম ৭৫০০ থেকে ৭৭০০ টাকা। ৫০ টি রামবুটান ফল গাছের দাম ৩৭ হাজার ৫০০ থেকে ৩৮ হাজার ৫০০ টাকা। এবং ১০০ টি রামবুটান ফল গাছের দাম ৭৫ হাজার থেকে ৭৭ হাজার টাকা।


রামবুটান ফলের চারা কোথায় পাওয়া যায়

যে সব বিদেশি ফল এ দেশে সফলভাবে লাভজনক হিসেবে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে তার মধ্যে রামবুটান অন্যতম। এ ফল অনেকটা লিচুর মতো, তবে লিচুর চেয়ে আকারে বড়, ডিম্বাকৃতি, কিছুটা চ্যাপ্টা। পাকা ফল উজ্জ্বল লাল, কমলা বা হলুদ আকর্ষণীয় রঙের হয়ে থাকে। ফলের পুরু  খোসার উপরি ভাগ কদম ফুলের মতো শত শত চুল দিয়ে আবৃত। মালয়েশিয়া ভাষায় রামবুটানের অর্থ চুল। একই কারণে এ ফল চুল বা দাড়ি বিশিষ্ট লিচু বলে অনেকের নিকট পরিচিত। অনেকেই রামবুটান ফল চাষ করতে চায় কিন্ত রামবুটানের চারা কোথায় পাওয়া যায় তা না জানার কারণে অনেকেই এই চারা ক্রয় করতে পারে না। অনেকেই জানতে চায় রামবুটান ফলের চারা কোথায় পাওয়া যায়। চলুন জেনে নেই রামবুটান ফলের চারা কোথায় পাওয়া যায়। রামবুটান ফল এক সময় বাংলাদেশের মানুষের কাছে অনেক অপরিচিত ছিলো কিন্ত বর্তমানে বাংলাদেশে কিছু কিছু জায়গায় এই রামবুটান চাষ করা হয়। এর অনেক চাহিদা থাকায় অনেকেই এই ফলের চারা ক্রয় করতে চায়। আপনারা যারা এই রামবুটান ফলের চারা ক্রয় করতে চান তারা কোনো নার্সারি থেকে ক্রয় করতে পারেন তবে এই চারা সব নার্সারি পাওয়া যাবে না। তাই আপনারা কোনো কৃষি অফিসে যোগাযোগ করে এই ফলের চারা ক্রয় করতে পারেন।


রামবুটান ফলের উপকারিতা

রাম্বুটান হলো এক ধরনের মাঝারি আকৃতির ফল। এটি মূলত গ্রীষ্মকালীন দেশগুলিতে পাওয়া এক ধরনের ফল। এর বৈজ্ঞানিক নাম নিফেলিয়াম লাপ্পাসিয়াম (Nephelium lappaceum)। এটি স্যাপিনডাসি পরিবারের অন্তর্গত একটি মাঝারি বৃক্ষজাতীয় উদ্ভিদ। রাম্বুটান নামটির উৎপত্তি হয়েছে ইন্দোনেশীয় শব্দ রাম্বুটান থেকে, যার অর্থ রোম বা আঁশ। উদ্ভিদবিদেরা জানান, খেতে লিচুর মতো এই ফলটির আদি নিবাস ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, শ্রীলঙ্কা, মালয়েশিয়া ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায়।  এছাড়াও এটি  রাম্বুস্তান নামে পরিচিত। এই ফলের অনেক উপকার রয়েছে। অনেকেই জানতে চায় রামবুটান ফলের কি কি উপকারিতা রয়েছে। চলুন জেনে নেই রামবুটান ফলের উপকারিতা:

উপকারিতাঃ

রাম্বুটানে অনেক বেশি ফাইবার থাকে যে কারণে আপনার ওজন কমাতে সাহায্য করবে।

রাম্বুটানে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন থাকার কারণে আমাদের শরীরের হাড় ও দাঁতকে মজবুত করতে সাহায্য করে। এছাড়াও এতে থাকা  ফসফরাস হাড়ের বৃদ্ধি ও রক্ষণাবেক্ষণে অনেক সাহায্য করে।

রামবুটানকে প্রাকৃতিক এন্টি সেপটিক বলা হয়।

জাতীয় ফল হিসেবে রামবুটানের নানা গুণ রয়েছে। আপনি যদি সুস্থ থাকতে চান তবে রামবুটান ফল খেতে পারেন।

রামবুটান উচ্চ পুষ্টিমান সমৃদ্ধ একটি ফল। প্রজাতি ভেদে শর্করার পরিমাণ থাকে 20 থেকে 25 শতাংশ। হজম যজ্ঞ থাকে এক শতাংশ। এছাড়া পর্যাপ্ত পরিমাণে বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন এবং খনিজ পদার্থবিদ্যা মান থাকায় এটি অনেক ধরনের রোগ প্রতিরোধ ও নিরাময়ের সহায়তা করে।

শরীরের ক্ষতস্থান পূরণ জ্বর কমানো আমাশয় রোগ প্রতিরোধে রামবুটান টান ফল খাওয়া হয়। ফল ডায়রিয়া আমাশয় প্রতিরোধক ও কিরমিনাশক হিসেবে কাজ করে। কাশি পেটব্যথা টিউমার এবং ব্লান্ডের ভিত্তি দমনের ক্ষেত্রেও রামবুটান কার্যকরী।

রাম্বুটান পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ ফল। এতে আছে প্রচুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা শরীর সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। এতে প্রচুর আয়রন ক্যালসিয়াম পটাশিয়াম ম্যাগনেসিয়াম ফাইবার ও খনিজ রয়েছে। এতে আছে গ্যালিড অ্যাসিড যা শরীরের ফ্রি রেডিকেলস বা রোগ সৃষ্টিকারী রেডিক্যালস নিয়ন্ত্রণে রাখে।

রাম্বুটান আছে প্রচুর ফসফরাস যাহার গঠনে সাহায্য করে। ভারত ও তাদের যত্ন নিতে আপনি নিয়মিত রাম্বুটান ফল খান।

রাম্বুটান কে প্রাকৃতিক এন্টি সেপটিক বলা হয়। এতে থাকা নানা উপাদান শরীরকে নানা ধরনের সংক্রমণ থেকে রক্ষা করতে পারে।রাম্বুটানে থাকা এন্টিঅক্সিডেন্ট ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া প্রতিরোধে কাজ করে। এতে থাকা ভিটামিন সি নানা রোগ থেকে আপনাকে রক্ষা করবে।

রামবুট অনেক কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সাহায্য করে। এবং এটা হজমে খুবই কার্যকরী একটি ফল।

রামবুটানের চোখের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে। যারা চোখের সমস্যায় ভুগছে তারা প্রতিদিন রাম্বুটান ফল খান এতে করে আপনার চোখের সমস্যা কমে যাবে।

যারা ডায়রিয়ার সমস্যায় ভুগছেন তারা কাঁচা রাম্বুটন ফল খান। কাচা রাম্বুটান নানা রকম পুষ্টিগুণ থাকায় তিন রকমের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে আপনার শরীরে। এবং রাম্বুটান হিমোগ্লোবিনের মাত্রা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

রাম্বুটানে আছে ক্যালসিয়াম যা হারচুল লক টক ভালো রাখতে সাহায্য করে।রাম্বুটান গাছের ছাল ক্যান্সারের জন্য বেশ কার্যকরী একটি ফল।

রামবুটান ফলের খোসা আমাশয় এবং সাহায্য করে এছাড়াও এর খোসা ক্যান্সারের জন্য বেশ কার্যকরী। এর ফলের খোসা কাঁচা ও খেতে পারেন আপনি।

রামবুটান ফলের বীজ সাবান ও মোমবাতি বানানোর কাজে ব্যবহার করা হয়। এছাড়াও রামবুটানের বীজ ত্বকের জন্য ভালো। রামবুটান গাছের পাতার রস মাথার ত্বকে লাগালে চুলের ঘনত্ব বাড়ে এছাড়াও এর পাতার রস খেলে স্নায়ুকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে এবং আপনার সকল প্রকার শরীরের ব্যথা দূর করে। এছাড়াও এর আরো অনেক উপকারিতা থাকতে পারে।


রামবুটান ফল কোন দেশের

রামবুটান এর বৈজ্ঞানিক নাম: Nephelium lappaceum, ইংরেজি নাম: Rambutan । এটি Sapindaceae পরিবারের Nephelium গণের অন্তর্ভুক্ত ফলের গাছ। রামবুটান দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার স্থানীয় ফল হিসাবে পরিচিত। একধরনের গ্রীষ্মমণ্ডলীয় অঞ্চলের Sapindaceae জাতীয় উদ্ভিদ। তবে ফল হিসেবেই এটি সর্বাধিক পরিচিত। লিচু, লঙ্গান ইত্যাদি গ্রীষ্মমণ্ডলীয় ফলের সাথে এর সাদৃশ্য রয়েছে। এর আকার মাঝারি ধরনের এবং বর্ণ লাল। এটি মিষ্টি স্বাদযুক্ত একটি ফল। এই ফল বিভিন্ন দেশে পাওয়া যায়। অনেকেই জানতে চায় রামবুটান ফল কোন দেশের ফল। চলুন জেনে নেই রামবুটান ফল কোনা দেশের।

এই ফলটির প্রধাণ উৎস হলো মালয়েশিয়া এবং ইন্দোনেশিয়া। তাই বলা যায় এই ফলটি মালয়েশিয়ান এবং ইন্দোনেশিয়ান। রামবুটান চীন, মালয়েশিয়া, শ্রীলঙ্কা, ইন্দোনেশিয়া এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় সবচেয়ে বেশি উৎপন্ন হয়। এছাড়াও বর্তমানে বাংলাদেশেও এই ফল চাষ করা হয়।


আশা করি আপনারা আমাদের এই পোস্ট থেকে রামবুটান ফলের দাম, চারার দাম, উপকারিতা এবং আরো অনেক কিছু জানতে পেরেছেন। আমাদের এই পোস্টে রামবুটান ফল সম্পর্কে বিস্তারিত দেওয়া আছে। আশা করি আমাদের এই পোস্টটি আপনাদের ভালো লেগেছে। পুড়ো পোস্টটি ধৈর্য ধরে সম্পূর্ণ পড়ার জন্য ধন্যবাদ। 


একই ধরনের পোস্ট

×